স্বপ্ন আমাদের জীবনের সবচেয়ে মজার এবং রহস্যময় অভিজ্ঞতা। রোমান যুগে কিছু কিছু স্বপ্ন বিশ্লেষনের জন্য রোম সম্রাটের কাছে পাঠানো হতো । তারা  মনে করতো স্বপ্ন সৃষ্টিকর্তার থেকে পাঠানো কোন বার্তা। এমনকি কোন কোন স্বপ্ন সেনা প্রধানদের দ্বারা বিশ্লেষন করা হত, তারা ভাবতো এর মধ্যে হয়তো  যুদ্ধের কোন কৈশল লুকায়িত আছে।

এখনও ভাবা হয় শিল্পীরা তাদের তাদের সৃষ্টিশীল কাজের অনুপ্রেরনা স্বপ্ন থেকেই পেয়ে থাকে।

কিন্তু আমরা স্বপ্ন সম্পর্কে কতটুকু জানি?



যাই হোক, জেনে নিন ১৫ আজব তথ্য স্বপ্ন সম্পর্কে– এবং ভাবুন কোন তথ্যটা মিলে য়ায় আপনা স্বপ্নের সাথে । যে তথ্যটা মিলে যায় সেটা আমাদের ফেজবুক গ্রুপে শেয়ার করতে ভুরবেন না-

১. আপনি আপনার ৯০% স্বপ্নই ভুলে যান-

ঘুম ভাঙ্গার মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যে আপনি আপনার দেখা স্বপ্নের অর্ধেক ভুলে যান । এবং ১০ মিনিটের মধ্যে আরও ৪০% অর্থাৎ ৯০% স্বপ্নই ভুলে যান।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে

২. অন্ধ মানুষও স্বপ্ন দেখে-

একদম জন্মান্ধ মানুষ ও স্বপ্ন দেখে ! স্বপ্নে ছবি দেখে !!

জন্মান্ধরা -যারা কখনও চোখে কিছুই দেখেনি তারাও স্বপ্নে খুব স্পষ্ট ছবি দেখে এবং অন্যান্য ইন্দ্রীয় অনুভূতি যেমন শব্দ, গন্ধ, স্পর্শ সবই মারাত্নক ভাবে অনুভব করে।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে



৩. সবাই স্বপ্ন দেখে-

গড়ে পড়তায় সবাই স্বপ্ন দেখে(-শুধুমাত্র যাদের সাইকোলজিক্যাল ডিজঅর্ডার আছে).। আপনি যদি বলেন যে আপনি কোন স্বপ্নই দেখেননা তাহলে আপনি ভুল করছেন ! আপনি ঠিকই স্বপ্ন দেখেন কিন্তু ঘুম ভাঙ্গার পর আপনি একেবারেই ভুলে যান।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে

৪. স্বপ্নে আমরা শুধুমাত্র পরিচিত মুখই দেখি-

আমাদের মন চেহারা(মুখ-অবয়ব) তৈরি করতে পারে না- আমাদের স্বপ্নে আমরা আমাদের পরিচিত মুখই দেখি, পরিচিত লোকই দেখি যা আমরা আমাদের জীবনে কখনও না কখন দেখিছি, তা হয়তো আমরা ভুলেই গেছি। আমরা সবাই আমাদের আমাদের জীবনে শত সহস্র মুখ দেখে থাকি কিন্তু কত জনের চেহারা মনে রাখি কিন্তু আমাদের ব্রেন নামক হার্ডৃডিস্ক সব চেহারা সংরক্ষন করে রাখে। অতএব আমাদের স্বপ্নে চরিত্র সরবরাহ করার জন্য যথেষ্ট চরিত্র, চেহারা আমাদের মস্তিষ্কই সরবরাহ করে।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে



৫. সবাই রঙ্গিন স্বপ্ন দেখে না-

১২% লোক কেবলমাত্র সাদা-কালো স্বপ্নই দেখে। বাদবাকী সবাই রঙিন স্বপ্ন দেখে। ১৯১৫ সাল থেকে ১৯৫০ সাল পর্যন্ত দেখা স্বপ্নের এক উপাত্ত বিশ্লেষন করে দেখা গেছে যে তখনকার বেশির  ভাগ মানুষের স্বপ্ন সাদাকালো ছিল কিন্তু ১৯৬০ সালের পর তা পরিবর্তি হতে থাকে। বর্তমানে ২৫ বছরের নিচের ৪.৪% ছেলে-মেয়েরা সাদা-কালোতে স্বপ্ন দেখে। এক গবেষনায় দেখা গেছে যে এ পরিবর্তনের মূল কারন ফ্লিম এবং টেলিভিশ সাদাকালো থেকে রঙিনে পরিবর্তনের প্রভাব।

৬. স্বপ্নগুলো সাংকেতিক-

আপনি যদি সুর্নিদিষ্ট কোন বিষয়ের উপর স্বপ্ন দেখেন তাহলে এটা ভাবার কোন অবকাশ নেই যে আপনার জীবনে তাই ঘটবে। স্বপ্ন কে বলা হয় Deeply Symbolic Language (রহস্যময় সাংকেতিক ভাষা)। যত অবাস্তবই হোক না কেন স্বপ্ন তার সংকেতিক চিহ্ন আপনার জন্য রেখে যায়।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে 

৭. আবেগী স্বপ্ন-

আমাদের বেশিরভাগ স্বপ্নই থাকে অস্থিরতায় পরিপূর্ন। এবং বেশিরভাগ অস্থিরতার পরিনতিই হয়ে থাকে বিয়েগাত্নক। যেমন –আপনি গাড়ির জন্য দৈড়াচ্ছেন কিন্তু গাড়ি ধরতে পাড়ছেন না, কোথাও তেকে পড়ে যাচ্ছেন কিছু আকড়ে ধরে রাখতে চাচ্ছেন কিন্তু পাড়ছেন না। ১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে



৮. প্রতি রাতে কতটি স্বপ্ন দেখেন-

প্রতি রাতে গড়ে আমরা চার থেকে সাতটি স্বপ্ন দেখি। এ স্বপ্ন দেখতে আমরা এক থেকে দুই ঘন্টা সময় ব্যায় করি।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে

৯. পশু –পাখিও স্বপ্ন দেখে-

বিভিন্ন গবেষনায় দেখা গেছে যে স্বপ্ন দেখার সময় মানুষের মস্তিস্কে  যে রকম ইলেকট্রো-ম্যাগনেটিক ওয়েভ পাওয়া যায় ঠিক একই রকম ওয়েভ পশু-পাখির বেলায়ও পরিলক্ষিত হয়। ভাল ভাবে কুকুরের ঘুম খেয়াল করলে দেখতে পাবেন –দৌড়ানের সময় তার পায়ের থাবা (paw) যেভাবে থাকে ঠিক সেভাবে করবে যেন সে দৌড়াচ্ছে এবং মাঝে মাঝে এমন শব্দ করবে যেন সে কোন শিকার ধরেছে।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে



১০. দেহের অসাড়তা/পক্ষাঘাত (Body Paralysis)-

Rapid eye movement (REM) –এক ধরনের ঘুমের বৈশিষ্ট্য যা কেবল মাত্র প্রাপ্ত বয়ষ্কদের ঘুমের মাঝে দেখা যায়। এটা ঘুমের ২০-২৫% সময় জুঢ়ে হয়ে থাকে। REM –এর সময় আমাদের সমস্ত শরীর তার কার্যকারিতা হারিয়ে ফেলে এবং আমরা কোন নড়াচড়াই করতে পাড়ি না। এমনকি যখন আমরা ঘুম থেকে উঠি তখনও এমনটা থাকতে পাড়ে। একেই sleep paralysis বলা হয়।এটা মারাত্নক কিছুই না। এ পক্ষাাঘাতগ্রস্থতা ৫-১০ মিনিটের মধ্যেই কেটে যায়।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে

১১. পুরুষ এবং মহিলাদের স্বপ্ন-

পুরুষ মানুষ সাধারনত স্বপ্নে পুরুষ মানুষই বেশি দেখে থাকে গড়পড়তায় ৭০% ক্ষেত্রেই এমনটা হয়। কিন্তু মহিলারা স্বপ্নে সমান সংখ্যক পুরুষ ও মহিলাই দেখে থাকে। পুরুষেরা মহিলাদের তুলনায় বেশি আক্রমনাত্নক স্বপ্ন দেখে থাকে।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে

১২. স্বপ্ন কি সত্যি হয়-

বিভিন্ন পরিসংখ্যান পর্যালোচনা করে দেখা গেছে যে ১৮% থেকে ৩৮% মনেুষের অন্তত একটা স্বপ্নের ফল সঠিক হয়েছে। ৬৩% থেকে  ৯৮% মানুষ মনে করে স্বপ্নের ফল সঠিক হয়ে থাকে।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে



১৩. নাক ডাকার সময় স্বপ্ন-

নাক ডাকার সময় মানষ স্বপ্ন দেখতে পারে না। যদি বিশ্বাস না হয় যরা নাক ডাকে তাদেরকে জিজ্ঞাস করুন দেখবেন তা তাদের স্বপ্ন সম্পর্কে কিছুই বলতে পারবে না। কারন তারা নাক ডাকার সময় স্বপ্নই দেখে না।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে

১৪. স্বপ্নে যৌন সংগম-

মানুষ স্বপ্নে বাস্তব জীবনের মত যৌন সংগমের মত সুখ পেয়ে থাকে । বাস্তব জীবনের স্পর্শ, যৌন মিলরে স্বাদ একে বারে হুবহু আপনি স্বপ্নে পেয়ে থাকেন। বিজ্ঞানীরা স্বীকার করেছেন যে এক্ষেত্রে বাস্তবের সাথে যৌন স্বাধের কোন তারতম্য হয় না।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে

১৫. স্বপ্ন  সুপ্ত প্রতিভাকে উৎকর্ষিত করে-

ঘুম যেভাবে আপনার শরীরকে উজ্জীবিত করে ঠিক তেমনি স্বপ্ন আপনার সৃজনশীলতাকে উৎকর্ষিত করে।  American Psychological Association এর মতে স্বপ্ন সৃজনশীলতাকে বাড়িয়ে তোলে। স্বপ্ন যেমন আপনার অনেক জটিল বিষয়ের সহজ সমাধান দেয় তেমনি অনেক নতুন পন্য, শিল্প, বিজ্ঞানকে আমাদের সামনে নিয়ে এসেছে।

১৫-টি--আজব-তথ্য-স্বপ্ন-সম্পর্কে



১৫ আজব তথ্য স্বপ্ন সম্পর্কে লেখাটি ইংরেজী থেকে অনূবাদকৃত। যে সকল তথ্য উপাত্ত থেকে সাহায্য নেয়া হয়েছে  সেগুলো হল-

Wikipedia

লাইফহ্যাক

ওয়াল্ড ইজ সিক

ভ্যালিস স্লিপ সেন্টার

পিপল ম্যাগাজিন